যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের দুই গ্রুপের প্রতিষ্ঠাবাষিকী পালন

ঠিকানা রিপোর্ট: যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগসহ অন্যান্য অঙ্গ সংগঠনের মধ্যে বিভক্তি দীর্ঘ দিনের। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের মত যুক্তরাষ্ট্র যুব লীগও দুই ভাগে বিভক্ত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতিসংঘে আগমন উপলক্ষে যুব লীগের বিভক্তি আরো চরম আকার ধারণ করেন। একটি মারামারির ঘটনাকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. ছিদ্দিকুর রহমান সেবুল- জামাল নেতৃত্বাধীন যুব লীগের নেতাদের বিরুদ্ধে মামলাও করেছিলেন। যে মামলা থেকে ইতিমধ্যেই জামাল হোসেন এবং সেবুল মিয়া অব্যাহতি পেয়েছেন। কিন্তু যুব লীগের বিভক্তি দূর হয়নি। এমন কি সভাপতিও এই বিরোধ নিপত্তি করেননি। মূলত: যুব লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে এখন দা- কুমড়া সম্পর্ক। যে কারণে উভয় গ্রুপই আলাদা আলাদা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। যুব লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ কয়েক বছর আগে। একটি আহবায়ক কমিটি দেয়া হলেও মূল কমিটি করা হয়নি। সকলেরই প্রত্যাশা কেন্দ্র থেকে মূল কমিটি আসবে। কিন্তু সে আশায় গুড়েবালি। কবে কমিটি আসবে তাও কেউ জানেন না। যে কারণে আলাদা আলাদাভাবে অনুষ্ঠান করা হয়। যুব লীগের ৪৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানও আলাদা করা হয়।

জামাল-সেবুলের নেতৃত্বাধীন যুবলীগ
নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের পালকি পার্টি হলের সামনে শান্তির প্রতীক পায়রা এবং যুবলীগের পতাকাসহ আকাশে বেলুন উড়ানোর মধ্য দিয়ে সন্ধ্যা ৬ টায় অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের উদ্বোধক যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অন্যতম উপদেষ্টা ও জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি বদরুল হোসেন খান। এ সময় দলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ সেবুল মিয়া ও ইফজাল চৌধুরীর যৌথ উপস্থাপনায় ২য় পর্বের আলোচনা সভায় সভাপত্বি করেন যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও উদ্যাপন কমিটির আহ্বায়ক রহিমুজ্জামান সুমন। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ড. প্রদীপ রঞ্জন কর, প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের তিনবারের সাবেক সফল সভাপতি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের মানবাধিকার সম্পাদক মিসবাহ্ আহমদ, বিশেষ বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সাবেক সফল সাধারণ সম্পাদক, সাবেক ছাত্রনেতা ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক মোঃ ফরিদ আলম। বিশেল অতিথি হিসাবে আরো বক্তব্য রাখেন ঢাকা উত্তর মহানগর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন চঞ্চল, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক শেখ জামাল হোসাইন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আব্দুল জলিল, হাকিকুল ইসলাম খোকন, জয়নুল আবেদীন, আইন সম্পাদক এডভোকেট শাহ মোঃ বখতিয়ার, সাবেক ছাত্রনেতা ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের জনসংযোগ সম্পাদক কাজী কায়েস, সদস্য ইলিয়ার রহমান, সদস্য কিউ আলম হিরা, যুক্তরাষ্ট্র মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী অধ্যাপিকা শাহনাজ মমতাজ, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাবেক যুবলীগ নেতা জাকারিয়া চৌধুরী, সাবেক যুবলীগ নেতা ও যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি দুরুদ মিয়া রনেল, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও প্রধান সমন্বয়কারী রিন্টু লাল দাস, যুগ্ম আহ্বায়ক হেলিম উদ্দিন, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম (বাবু), যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা ওয়ালী হোসেন, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ সদস্য নুরুল ইসলাম, মনির উদ্দিন, শাহীন কামালী, রেজা আবদুল্লাহ, জাকির হোসেন।

নিউইয়র্ক স্টেট যুবলীগের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সভাপতি রবিউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সোয়েব আহমদ, সহ সভাপতি নূর হোসেন ফরহাদ, সহ সভাপতি অলিউর রহমান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী, মামুন সরকার, হুমায়ূন, হেলাল আহমেদ, আশফাক চৌধুরী, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জেডএ জয়, নিউইয়র্ক মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, সহ সভাপতি মামুন হোসেন, জামাল আহমদ, ম্যানহাটন যুবলীগের সভাপতি আজমান আলী, পেনসিলভেনিয়া যুবলীগের সভাপতি আলিম উদ্দিন, সাধারণে সম্পাদক ওমর ফারুক, রোমিও রহমান, ফারুক হোসাইন, ছদরুন নূর, মঞ্জুর চৌধুরী, খন্দকার জাহিদ হাসান, সুমন আহমদ, মাহফুজুর রহমান, শিবলী সাদিক, জেসমিন বোখারী, রোমানা আকতার।
বর্ণাঢ্য এই প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী গতানুগতিক অনুষ্ঠান না করে ভিন্নমাত্রায় পরিচালিত হয়। অনুষ্ঠানস্থলের বাইরে রঙ্গিন গেইট, পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে উদ্বোধন, ভিডিও প্রজেক্টরের মাধ্যমে শেখ হাসিনা সরকারের ১০ বছরের উন্নয়ন চিত্র, শেখ মনি ও জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, বঙ্গবন্ধু হত্যার ভিডিও ফুটেজ, বিএনপি- জামাতের আগুন সন্ত্রাস, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের বিগতদিনের কার্যক্রম চিত্র, যুবলীগের জন্ম বার্ষিকীর কেক কাটা, বিশাল নৌকা মঞ্চ।
অনুষ্ঠানে আগত নেতৃবৃন্দ আগামী একাদশতম জাতীয় নির্বাচনে সুদুর যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে গিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারকে আবারো ক্ষমতায় নিয়ে বাংলাদেশের ধারাবাহিক উন্নয়নকে বজায় রাখার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠান দেশী ও প্রবাসী শিল্পীদের দ্বারা মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে সমাপ্ত হয়।
তরিকুল হায়দারের নেতৃত্বাধীন যুবলীগ
ঠিকানা রিপোর্ট: বাংলাদেশের উন্নয়ন ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন রাখতে আসন্ন নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীদের বিজয়ে একযোগে কাজের অঙ্গীকারের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করেছে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ। এ উপলক্ষে জ্যাকসন হাইটসের হাটবাজার পার্টি হলে ‘গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম, সাফল্যের ৪৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী’, ‘জনগণের ক্ষমতায়ন, যুব সমাজ হও বলিয়ান’ ‘নৌকায় ভোট দিন’ লিখা ব্যানারের সামনে স্থাপিত মঞ্চে গত ১১ নভেম্বর রোববার সন্ধ্যায় আলোচনা ও বর্ণিল সাংস্কৃতিক উৎসবের আয়োজন করে সংগঠনটি। উৎসবমুখর পরিবেশে অতিথি ও নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে অনুষ্ঠান উপলক্ষে প্রকাশিত স্মারক সংকলনের মোড়ক উন্মোচন ও প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটেন অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম শাহীন।
যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের আহ্ববায়ক একেএম তারিকুল হায়দার চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম আহ্বায়ক ইঞ্জিনিয়ার বাহার খন্দকার সবুজ, শাহ সেলিম ও আমিনুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুদ্দিন আজাদ, বিশেষ অতিথি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, উপদেষ্টা জয়নাল আবেদীন, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল হাসিব মামুন, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুজ্জামান, কার্যকরী সদস্য আলী হোসেন গজনবী, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুর রহমান, সহ সভাপতি সাইকুল ইসলাম, উপদেষ্টা কফিল চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এবং বাংলাদেশ ল’ সোসাইটির সাবেক সভাপতি মোর্শেদা জামান, পেন্সিলভেনিয়া স্টেট আওয়ামী লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহের, সাংগঠনিক সম্পাদক লুতৎফুর রহমান হিমু, মুক্তিযাদ্ধা মো: মুসা, মো সেলিম ও মো মনসুর কাইয়ুম।
অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের অন্যতম সদস্য সাইফুল্লাহ ভুইয়া, একরামুল হক সাবু, আব্দুল ওয়াহিদ, আতিকুল রহমান সুজন, হুমায়ুন আহমেদ চৌধুরী, রিয়াদুল কাদির লস্কর মিঠু, শাহ রাহিম শ্যামল, তরিকুল ইসলাম বাদল, আকমাম খান, স্বপন কর্মকার, গনেশ কীর্ত্তনিয়া,আব্দুল হাই পারভেজ, শেখ ওলি আহাদ, নাজমুল ইসলাম, ফজলু, স্বপন বিশ্বাস, মুরাদ আহমদ, সাহিদ সিরাজ সৈরভ, আজহারুল চৌধুরী, বাবুল আহমেদ মাস্টার, রাজু, স্বপন আহমেদ, নিউইয়র্ক স্টেট যুবলীগের ফরহাদ আহসান, লিটন চৌধুরী, টিটু আহমেদ, আব্দুল আলীম, গিয়াস উদ্দিন, নিউইয়র্ক সিটি যুবলীগের রেজাউল আলম অপু, জুনায়েদ আহমেদ, শেখ সাজু হাসান, ইমরান আহমদ, ইমরান আলী টিপু, মনির উদ্দিন, মহিউদ্দিন চৌধুরী খোকন, হাফিজ উদ্দিন, বি. আহমদ, মনওয়ার হোসেন, হাছান খান, তহিদুর রহমান তওয়াব, জুনেদ আহমদ প্রমুখ।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ নেতা হুমায়ুন আহমদ চৌধুরীর সম্পাদনায় চার রঙ্গা চমৎকার একটি স্মরণীকা প্রকাশ করা হয়।
অনুষ্ঠানে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত ও দোয়া মুনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা সাইফুল আলম সিদ্দিকি। দোয়া মুনাজাতে বঙ্গবন্ধুসহ সকল শহীদের আত্মার মাগফেরাত এবং দেশ, জাতিসহ বিশ্ব মানবতার শান্তি কামনা করা হয়। অনুষ্ঠানে সমবেত জাতীয় সংগীত পরিবেশিত হয়। শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে পালন করা হয় ১ মিনিট নিরবতা।
কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম শাহীন তার বক্তৃতায় শেখ হাসিনার সরকারের সময় বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মসূচি এবং যুবলীগের পক্ষ থেকে নেয়া নানা কাজের কথা উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বিশ্বে স্বীকৃতি লাভ করেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে ২০২১ সালের মধ্যে দেশ ডিজিটালাইজড এবং মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে চলেছে। ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে সরকার। ইতোমধ্যেই নি¤œমধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ।
মঞ্জুরুল আলম শাহীন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে বিশ্বাসী এবং রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আস্থাশীল যুবকদের নিয়েই এই যুবলীগ। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা ‘জনগণের ক্ষমতায়ন’ দর্শণের মাধ্যমে জাতির পিতার আদর্শ বাস্তবায়ন করেছেন। যুবলীগকে এই আদর্শ ধারণের মাধ্যমে এগিয়ে যেতে হবে। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার দেশ গড়ার ডাকে উজ্জীবিত যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের মেধাবী যুবনেতারা যুব সমাজের আলোকবর্তিকা হিসেবে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, আসন্ন নির্বাচন বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। উন্নয়নের ধারবাহিকতা অব্যাহত রাখতে এ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীদের বিজয়ে একযোগে কাজ করতে তিনি যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের প্রতি আহ্বান জানান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুদ্দিন আজাদ যুবলীগের গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকার ইতিহাস তুলে ধরে বলেন, সুশৃংখল যুব সংগঠন যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগে বিশৃংখলাকারীদের স্থান নেই। সবাইকে আসন্ন নির্বাচনে সরকারের পক্ষে উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরার আহ্বান জানান তিনি।
যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের আহ্ববায়ক একেএম তারিকুল হায়দার চৌধুরী বলেন, প্রবাসের সর্ববৃহৎ শক্তিশালী ও সুশৃংখল যুব সংগঠন যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের নেতৃত্ব জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ কে সফল করতে যুবলীগের নেতাকর্মীরা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের বিগত দিনের কর্মকান্ড পর্যালোচনা করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রবাসী যুব সমাজকে আরও এগিয়ে নিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি যুবলীগ কর্মী তৎপর। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ ও বাস্তবায়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার দু:সময়ের পরিক্ষিত যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ নেতা-কর্মীরা আজ ঐক্যবদ্ধ। তিনি বলেন, আসন্ন নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীদের বিজয়ে ে শে-প্রবাসে একযোগে কাজ করতে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের নেতৃত্বে যুব সমাজ বদ্ধপরিকর। উপস্থিত সকল নেতা-কর্মীকে এসময় ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।
অনুষ্ঠানে অন্যান্য বক্তারা দেশের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে বহির্বিশ্বে শক্তিশালী করতে যুবলীগকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তারা দেশ ও দলের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের প্রতিহত করতে প্রবাসীদের সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান। অনিয়ম আর অসাংগঠনিক কর্মকান্ড ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিহত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। ঐক্যবদ্ধ ও সুসংগঠিত যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ গড়ার স্বার্থে কমিটি গঠন করারও আহ্বান জানান হয় সমাবেশ থেকে।
অনুষ্ঠানে পেনসিলভেনিয়া স্টেট যুবলীগ অনুমোদিত
অনুষ্ঠানে পেনসিলভেনিয়া যুব লীগের আহবায়ক কমিটির নাম ঘোষণা করা হয়। কমিটির কর্মকর্তারা হলেন : আহবায়ক আবুল হোসেন মুন্না, যুগ্ম আহবায়ক শেখ ইফতেখারুল হক, নুরুল আবছার, আহমেদ দুলাল, সদস্য হাসান শহীদ, মো: সালাউদ্দিন, মাহমুদুর রহমান বিপুল, আশফাকুল আলম সাকিল, খুরশেদ আলম ও নুর আলম রনি।
সবশেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন কৃষ্ণাতিথি, রানো নেওয়াজ সহ প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পীরা।