রাশিয়ায় ২৩ ব্রিটিশ কূটনীতিক বহিষ্কৃত

বিশ্বচরাচর ডেস্ক : যুক্তরাজ্যের নেওয়া পদক্ষেপের জবাবে ২৩ ব্রিটিশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করছে রাশিয়া। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তাদের রাশিয়া ছেড়ে যেতে বলা হয়েছে। গত ১৭ মার্চ রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মস্কোতে যুক্তরাজ্য দূতাবাসকে এ বহিষ্কারের নির্দেশনা দেয়।

বিবিসির খবরে বলা হয়, একই সঙ্গে সেইন্ট পিটারসবার্গে যুক্তরাজ্যের কনস্যুলেট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। যুক্তরাজ্যের সঙ্গে সাংস্কৃতিক সম্পর্কও কমানোর ইংগিত দিয়েছে রাশিয়া। দেশটিতে ব্রিটিশ কাউন্সিল বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

ব্রিটেনে রাশিয়ার গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়ার ওপর নার্ভ গ্যাস প্রয়োগের অভিযোগে উত্তেজনা বাড়ে দুই দেশের মধ্যে। এর সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ফ্রান্সসহ বেশ কয়েকটি দেশ। গুপ্তচর ও তার মেয়ের ওপর নার্ভ গ্যাস প্রয়োগের জন্য মস্কোকে দায়ী করা হয়েছে।

এর প্রতিবাদে সম্প্রতি ২৩ রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয় ব্রিটেন। এ ইস্যুতে ব্রিটেনকে নিরঙ্কুশ সমর্থন জানায় যুক্তরাষ্ট্র। পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে এবার রাশিয়াও যুক্তরাজ্যের কূটনীতিকদের বহিষ্কার করল।

গত ৪ মার্চ ব্রিটেনের সলসবারির একটি দোকানের সামনে বেঞ্চের ওপর অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয় রাশিয়ার সাবেক গোয়েন্দা সের্গেই স্ক্রিপাল (৬৬) ও তার মেয়ে ইউলিয়াকে (৩৩)। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের হাসপাতালে নেওয়া হয়। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এ ঘটনার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করেন।

ব্রিটিশ সরকারের দাবি, সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়ার ওপর নোভিচক নামে রাশিয়ার নার্ভ গ্যাস প্রয়োগ করা হয়েছে। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে রাশিয়া। এ নিয়ে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা বাড়তে থাকে।