রুক্মিণীকে ভুলে কৌশানিকে বিয়ে করছেন দেব?

ঠিকানা অনলাইন : দেবের হাতে মালা। তার সঙ্গীর হাতেও মালা। কিন্তু সেই সঙ্গী রুক্মিণী মৈত্র নন। অন্য কেউ। প্রজাপতি ছবিতে তার সঙ্গে যার বিয়ে ঠিক হয়েছিল, সেই কৌশানি মুখোপাধ্যায় তার সঙ্গে আছেন।

তবে কি রুক্মিণীকে ভুলে দেব কৌশানিকে বিয়ে করছেন? না না, একদমই সেটি নয়; আদতে দেব কৌশানি তাদের ছবির একটি দৃশ্যের ছবি পোস্ট করেছিলেন।

দেব রোববার টুইটারে দুটি ছবি পোস্ট করেন তার ও কৌশানির। তাদের দুজনের হাতেই মালা ধরা। তবে তাদের বিয়ে নয়। অন্য কারও বিয়ে। অন্তত তেমনই অভিনেতার পোস্ট দেখে বোঝা যাচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এ দুটো ছবি পোস্ট করে দেব লেখেন— আমি জানি, আমি জানি এই দৃশ্য ছবি থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে, কিন্তু তাও… আপনারা কি গেস করতে পারছেন আমরা কাদের বিয়ের প্ল্যান করছি? না সেটি বুঝতে কারও অসুবিধা হয়নি, মিঠুন চক্রবর্তী ও মমতা শঙ্করের বিয়ের! থুড়ি গৌর ও কুসুমের।

আসলে এই ছবিতে দেখা যায় প্রথমদিকে দেব বাবার বিয়ের প্রস্তাব মেনে নিতে না পারলেও শেষ পর্যন্ত বাবার কলেজের বন্ধু কুসুমকে মেনে নেন মা হিসেবে। পরিস্থিতি তাকে বুঝিয়েছিল এবং তার সঙ্গেই বাবার বিয়ে দিতে চান। আর কুসুমের মেয়ে কৌশানি তো আগে থেকেই রাজি ছিল। ফলে এই ছবিতে গৌর ও কুসুমের বিয়ে দেখানো হয়েছিল। মানে শুটিং করা হয়েছিল। কিন্তু মূল ছবি থেকে সেই দৃশ্য বাদ দিয়ে দেওয়া হয়। আর সেই অজানা গল্পই তুলে ধরেন এ ছবির মাধ্যমে।

শুধু তাই নয়, দেব তার এই টুইটে নিজের ছবির প্রচারও করে দেন। তিনি বলেন, এখনো সিনেমা হলে প্রজাপতি চলছে। আদতে চলছে না, রীতিমতো ঝড়ো ব্যাটিং করছে এই ছবি। বক্স অফিসে এখনো বেশ ভালো সাড়া পাচ্ছে এটি। ১ জানুয়ারি ছবিটি সব রেকর্ড ভেঙে এক কোটি টাকার ব্যবসা করে। দেব-মিঠুনের রসায়ন যে হিট সেটি বলা যায়।

দেবের শেয়ার করা ছবিতে তাকে একটি নীল পাঞ্জাবি পরে থাকতে দেখা গেছে। অন্যদিকে কৌশানির পরনে ছিল মেরুন রঙের শাড়ি ও ম্যাচ করা ব্লাউস। দুজনের হাতেই রজনীগন্ধার মালা। একটি ছবিতে তারা ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে হাসছেন। আরেকটিতে দুজন দুজনের দিকে তাকিয়ে হাসছেন।

ঠিকানা/এসআর