লিড ধরে রাখতে পারল না যুক্তরাষ্ট্র, ড্র দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু

ছবি সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : ওয়েলসের বিপক্ষে প্রথমার্ধের ১-০ গোলের লিড ধরে রাখতে পারল না যুক্তরাষ্ট্র। ম্যাচের একেবারে শেষ মুহূর্তে ৮২ মিনিটে প্যানাল্টির সুবাদে সমতায় ফেরে গ্যারেথ বেলের দল ওয়েলস। বাকি সময় আর কোনো দল গোল করতে না পারায় ১-১ গোলের ড্র নিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করল যুক্তরাষ্ট্র।

প্রথমার্ধে ০-১ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ওয়েলস। দ্বিতীয়ার্ধে নেমেই আক্রমণ বাড়াতে থাকে তারা। মাঝমাঠ দখলে নিয়ে মুহুর্মুহু আক্রমণ করে গ্যারেথ বেলের দল। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত ফল পাচ্ছিল না। ৬৫ মিনিটে মুর এর হেড গোলবারের উপর দিয়ে চলে যায়৷ ৮২ মিনিটে ব্রেক থ্রু পায় ওয়েলস। ডি বক্সের ভেতর গ্যারেথ বেলকে ফাউল করে বসেন যুক্তরাষ্ট্রের জিমারমান। রেফারি পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন। স্পট কিক থেকে বিশ্বকাপের মঞ্চে প্রথম গোলটি করেন বেল। শেষ দিকে আরও কিছু সুযোগ তৈরি করেছিল ওয়েলস। কিন্তু গোলের দেখা পায়নি। ফলে ১-১ গোলের সমতায় থেকে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই খেলা শেষ করে দুই দল।

এদিকে ৬৪ বছর পর বিশ্বকাপ খেলতে এসে জয় অধরাই রয়ে গেল ইউরোপের ছোট্ট দেশ ওয়েলসের। দুই দল শেষবার মুখোমুখি হয়েছিল ১৯৫৮ সালের বিশ্বকাপে। এরপর এবারই প্রথমবারের মতো কাতার বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়েছে ওয়েলস। কিন্তু প্রত্যাবর্তনটা সুখকর হলো না।

২১ নভেম্বর সোমবার অনুষ্ঠিত যুক্তরাষ্ট্র-ওয়েলস ম্যাচের শুরু থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের তরুণ তুর্কিরা ছড়ি ঘোরাতে থাকে ওয়েলসের ডিফেন্সের ওপর। ম্যাচের ৯ মিনিটে সার্জেন্টের শট গোলবারে লেগে ফিরে আছে না হলে শুরুতেই এগিয়ে যেতে পারত মার্কিনরা। পুরো ম্যাচে মাঝমাঠ দখল করে রাখলেও তেমন সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না যুক্তরাষ্ট্র। অবশেষে সেই সুযোগটি আসে ৩২তম মিনিটে। মাঝমাঠ থেকে বল পেয়ে চেলসির উইঙ্গার পুলিসিচের বাড়ানো বলে ডি বক্সের ভেতর থেকে গোলরক্ষককে পরাস্ত করে দলকে এবারের বিশ্বকাপে প্রথম গোল এনে দেন টিমোথি উইয়াহ। প্রথমার্ধ শেষে যুক্তরাষ্ট্র আরও কিছু গোলের সুযোগ তৈরি করলেও সেগুলো ওয়েলস রক্ষণভাগে এসে পরাস্ত হয়। যার ফলে এক গোলের লিড নিয়ে খুশি থাকতে হয় অল আমেরিকানদের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এই লিড ধরে রাখতে ব্যর্থ হওয়ায় ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হলো যুক্তরাষ্ট্রকে।

যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী ম্যাচ ২৫ নভেম্বর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে।

ঠিকানা/এনআই