সন্তানের জন্ম দিচ্ছেন বাবা

ছবি সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : সমাজের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে সন্তানের অভিভাবক হতে চলেছেন ভারতের এক রূপান্তরিত যুগল। আর এই সুসংবাদটি ভাগ করে নিতে ইনস্টাগ্রামকেই বেছে নিলেন তারা। ফটোশুট করলেন দুজনই। ফলাফল, মুহূর্তেই ভাইরাল ছবিগুলো। ঘটনাটি কেরালার কোঝিকোড়ের। ৪ ফেব্রুয়ারি শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ইন্ডিয়া টুডে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, কোঝিকোড় শহরের বাসিন্দা জিয়া ও জাহাদ তিন বছর ধরে একসঙ্গে থাকছিলেন। জিয়ার স্বপ্ন ছিল মা হওয়ার। অন্যদিকে জাহাদ চেয়েছিলেন বাবা হতে।

জানা গেছে, পুরুষ হয়ে জন্ম নিয়েছেন জিয়া। কিন্তু মন থেকে নিজেকে মেয়েই ভাবতেন। জীবনের একপর্যায়ে সাবলম্বী হন তিনি। আর এর পরই পাল্টে ফেলেন লিঙ্গ। প্রায় একই গল্প জাহাদের। নারী হয়ে জন্ম হয়েছিল তার। কিন্তু বরাবরই তিনি পুরুষ হতে চেয়েছিলেন।

রূপান্তরকামী হওয়ায় কঠিন সময়ের মধ্যে যেতে হয়েছে তাদের। ফলে যখন তাদের প্রথম দেখা হয়, একধরনের আত্মিক টান অনুভব করেন। জিয়ার দাবি, রূপান্তরিত দম্পতি হিসেবে ভারতে তারাই প্রথমবারের মতো স্বাভাবিকভাবে মা-বাবা হচ্ছেন। অবশ্য জন্মগতভাবে নারী হওয়ায় সন্তান ধারণ করছেন জাহাদই।

এদিকে জীবনের এই শুভক্ষণে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে কিছু বন্ধু আর পরিবারের সদস্যরা। তাদের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়েই ইনস্টাগ্রামে ছবি শেয়ার করেছেন দুজন। ছবির ক্যাপশনে জিয়া জানান, অনেক প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে তাদের। কিন্তু কখনো হার মানেননি। নতুন জীবনের স্বপ্ন দেখেছেন।

এদিকে জন্মের আগেই সন্তানের নাম ঠিক করে রেখেছেন এই রূপান্তরিত যুগল। আর নামটি হলো জীবন। বর্তমানে আট মাস চলছে জাহাদের। আর কিছু সময়ের অপেক্ষা। আগামী মার্চেই একটি সুস্থ সন্তানের জন্ম হবে, এই আশা তাদের। ইনস্টাগ্রামে তাদের শেয়ার করা ছবিতে ২০ হাজারের বেশি লাইক ও প্রতিক্রিয়া এসেছে।

ঠিকানা/এনআই