সমাবেশের আগের রাতেই কানায় কানায় পূর্ণ সিলেট আলিয়া মাদরাসা মাঠ

ছবি সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : বিএনপির সিলেট বিভাগীয় সমাবেশ আগামীকাল ১৯ নভেম্বর শনিবার নগরীর চৌহাট্টায় আলিয়া মাদরাসা মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। তবে সমাবেশের আগের দিন শুক্রবারই বিএনপির নেতাকর্মী-সমর্থকে ভরপুর হয়েছে সমাবেশস্থল। সন্ধ্যার পরে মাদরাসা মাঠ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। এমনকি সমাবেশস্থলের আশপাশ এলাকায়ও উপচে পড়া ভিড়।

বিভাগের চার জেলা সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ ছাড়াও বিভিন্ন এলাকার বিএনপির নেতাকর্মীরা এরই মধ্যে সিলেটে পৌঁছেছেন। তাদের অনেকে মাঠেই রাতযাপন করবেন। এ জন্য মাঠে সারি সারি তাঁবু তৈরি করা হয়েছে। এ ছাড়া নগরীর কমিউনিটি সেন্টারগুলোতে থাকছেন নেতাকর্মীরা। মাঠেই চলছে রান্না-খাওয়া। অনেকে মেতেছেন গান আর আড্ডায়।

বিএনপি সূত্র জানায়, মাঠে রান্নার পাশাপাশি শুক্রবার রাতের খাবারের জন্য বিভিন্ন কমিউনিটি সেন্টারে অন্তত ৩০ হাজার লোকের খাবার রান্না করা হয়েছে। মিছিলে-স্লোগানে উত্তাল এখন সিলেট। সমাবেশ নিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে। বিভাগজুড়ে পরিবহন ধর্মঘটের কারণে যাতায়াতের দুর্ভোগ, মাঠে রাত কাটানোর কষ্ট এসব গায়ে লাগছে না বলে জানালেন উপস্থিত নেতাকর্মীরা।

হবিগঞ্জ ও সুনামগঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আসা বিএনপির কয়েকজন নেতাকর্মী বলেন, গত ১৪ বছরে আওয়ামী লীগ সরকারের কারণে আমরা যে যন্ত্রণায় আছি, সে তুলনায় এই কষ্ট কিছুই নয়। বরং সমাবেশে এসে দলের বিভিন্ন অঞ্চলের নেতাকর্মীকে কাছে পেয়ে মনটা ভালো হয়ে গেছে।

বিএনপির সমাবেশের আগের দিন শুক্রবার সকাল ছয়টা থেকেই সিলেট বিভাগের চার জেলায় শুরু হয়েছে পরিবহন ধর্মঘট। পরিবহন মালিক-শ্রমিক সংগঠনগুলো বিভিন্ন দাবিতে জেলায় জেলায় এ ধর্মঘট ডেকেছে। সিলেটের সঙ্গে ঢাকাসহ দূরপাল্লার বাস চলাচলও বন্ধ রয়েছে। ধর্মঘটের কারণে সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। তবে পরিবহন ধর্মঘট সিলেটের সমাবেশমুখী বিএনপির নেতাকর্মীদের খুব একটা আটকাতে পারেনি। বিকল্প পথে তারা দলে দলে সিলেটে আসছেন।

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ, তাহিরপুর, ধর্মপাশা, মধ্যনগরসহ ভাটি এলাকার নেতাকর্মীরা ইঞ্জিনচালিত নৌকায় সুরমা নদী দিয়ে সিলেটে আসছেন। শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত এসব এলাকা থেকে অন্তত ৫০টি বড় নৌকায় নেতাকর্মীরা এসেছেন। শুক্রবার রাতে এবং শনিবার সকালে আরও অনেকে এসে পৌঁছাবেন। এ ছাড়া সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ থেকে শত শত মোটরসাইকেলে শুক্রবারই সিলেটে এসে পৌঁছেছেন নেতাকর্মীরা।

সমাবেশের মাঠে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করছেন জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা। সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্যসচিব শাকিল মুর্শেদ শুক্রবার সন্ধ্যায় বলেন, দূর-দূরান্ত থেকে আগত নেতাকর্মীদের অনেকে নিজ উদ্যোগে মাঠেই রান্না করে খাচ্ছেন। তবে রাতে অন্তত ৩০ হাজার লোকের খাবারের ব্যবস্থা করছে সমাবেশের আয়োজক সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি। এই খাবার বিভিন্ন কমিউনিটি সেন্টারে রান্না করা হচ্ছে।

সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসা মাঠে বিশাল মঞ্চ শুক্রবার প্রস্তুত করা হয়েছে। শনিবার এই মঞ্চে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ কেন্দ্রীয় নেতারা।

ঠিকানা/এনআই