সাইফুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

মৌলভীবাজার : নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে বরেণ্য অর্থনীতিবিদ সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের দশম মৃত্যুবার্ষিকী।
গত ৫ সেপ্টেম্বর এ উপলক্ষে মরহুমের গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজার সদর উপজেলার বাহারমন্দনে কুরআন খতম, মিলাদ মাহফিল দোয়া ও শিরনী বিতরণ করা হয়।
সকালে এম সাইফুর রহমানের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, আবুল কাহের চৌধুরী শামীম ও নাসিম হোসাইনের নেতৃত্বে সিলেট বিভাগের দলীয় নেতাকর্মী ও হবিগঞ্জ পৌর মেয়র আলহাজ জিকে গৌছের নেতৃত্বে হবিগঞ্জের দলীয় নেতাকর্মীরা মরহুমের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি এ উপলক্ষে মরহুমের স্মৃতিরপ্রতি শ্রদ্ধা জানায়।
পরে কবর জিয়ারত ও সাইফুর রহমানের রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়ায় শরিক হন সবাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মরহুম এম সাইফুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমানসহ পরিবারের অপর সদস্যরা। এ ছাড়া সিলেট বিভাগের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার দলীয় নেতারা।
উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে ৫ সেপ্টেম্বর মৌলভীবাজারের নিজ বাড়ি বাহারমন্দন থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের খড়িয়ালা নামক স্থানে এক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান।
মরহুম এম সাইফুর রহমানের মাগফিরাত কামনা করে মাহফিলে বিশেষ মুনাজাত করা হয়। মাহফিলে ষড়যন্ত্রমূলক মামলার ফরমায়েশি রায়ে দীর্ঘ দিন থেকে কারান্তরীণ হয়ে অসুস্থ বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি, আশু সুস্থতা ও দ্রুত কারামুক্তি কামনায় বিশেষ মুনাজাত করা হয়। এ ছাড়া মাহফিলে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ও আরাফাত রহমান কোকোর রূহের মাগফিরাত, তারেক রহমানের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু, নিখোঁজ জননেতা এম ইলিয়াস আলী, ছাত্রদল নেতা ইফতেখার আহমদ দিনার, জুনেদ আহমদ ও গাড়িচালক আনসার আলীসহ গুমকৃত সব নেতাকর্মীর সন্ধান কামনা ও দেশ জাতির মঙ্গল কামনায় বিশেষ মুনাজাত করা হয়।