সিদ্দিকের বিরুদ্ধে এবার গুরুতর অভিযোগ মিমের

ঠিকানা অনলাইন : ভালোবেসে অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিককে বিয়ে করেছিলেন মডেল-অভিনয় শিল্পী মারিয়া মিম। তবে তাদের ভালোবাসার টেকেনি৷ প্রথম সন্তান আরশ হোসেন জন্ম নেওয়ার কয়েক বছর পরই তারা আলাদা হয়ে যান।

সম্প্রতি সিদ্দিকের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করেছেন মিম। মিমের অভিযোগ— সিদ্দিক আরশকে নিজের কাছে রাখতে কূটকৌশল অবলম্বন করছেন।

মঙ্গলবার মধ্যরাতে সিদ্দিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়েছেন মিম। তিনি লিখেন— আরশের পরীক্ষা শেষ হওয়ার কারণে কয়েক দিনের জন্য ওর বাবার বাসায় গিয়েছিল। এটা যেতেই পারে বেড়াতে, স্বাভাবিক। যখন আমি আরশকে বাসায় নিয়ে আসি, তখন বোঝা যায় ওকে ব্রেন ওয়াশ করা হয়েছে। এটি আবার দু-তিন দিন পর ঠিক হয়ে যায়। আবার সব কিছু নরমাল হয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, আরশ যখন ওই বাসায় যায়, তখন ওর মাথায় দেওয়া হয় ১২ বছর হলে তোমাকে কোর্টে নেবে তখন তুমি বলবা বাবার কাছে থাকব। এসবই এই ছোট বাচ্চাকে বলা হয়।

এখন আমার কথা হলো— এত কষ্ট করে বাচ্চা লালন করছি আমি, স্কুল থেকে শুরু করে সব কিছু ভরণপোষণ আমি করি। আমি বড় করছি আর সে বড় করে নিয়ে যাবে ১২ বছর হলে। আমি এখন মামলা দেব যে, বাচ্চা নিয়ে ব্রেন ওয়াশ করে পাঠানো হয়। যখনই বাসায় যায় তখনই এমনটি করে। আমি এর শেষ দেখে ছাড়ব।

জানা গেছে, মিম এখন এই অভিযোগে সিদ্দিকের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তবে সাবেক স্ত্রীর অভিযোগ নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে অভিনেতা সিদ্দিকের মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ২৪ মে অভিনেতা সিদ্দিকের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন মারিয়া মিম। পরের বছরের ২৫ জুন তাদের কোলজুড়ে পুত্রসন্তান আসে। ২০১৮ সাল থেকে মডেলিং ও অভিনয় ক্যারিয়ার গড়তে ইচ্ছা পোষণ করেন মিম। কিন্তু সিদ্দিক তাতে রাজি হননি। তিনি চাইতেন, ছেলেকে সময় দিক মিম, পাক্কা গৃহিণী হয়েই থাক। এ নিয়ে ঝামেলা বাধে দুজনার। ২০১৮ সালে তারা আলাদা হয়ে যান। বর্তমানে মিমের কাছেই থাকে তাদের একমাত্র সন্তান।

ঠিকানা/এসআর