সুখবর দিলেন গীতা-হরভজন

ঠিকানা অনলাইন : ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী গীতা বসরাতে সাত পাকে বেঁধেছেন হরভজন সিং। এ দম্পতির ঘর আলো করে এসেছে দুই সন্তান। দুই ছেলেমেয়েকে বড় করতে গিয়ে অভিনয় থেকে দূরে সরে গেছেন গীতা। প্রায় ছয় বছর ধরে তাকে নাটক-সিনেমায় দেখা যায় না।

ছয় বছর অন্তরালে থাকার পর দর্শকদের সুখবর দিলেন গীতা। এবার তাকে দেখা যাবে পূজা সম্পতের ছবি ‘নোটারি’-তে। সঙ্গে থাকছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ও। সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশের শুটিংও শুরু হয়ে গেছে নতুন ছবির।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক স্পিনার হরভজন আর গীতার দুই সন্তান। মেয়ে হিনায়ার বয়স সাড়ে ছয়। আর ছেলে জোভান সবে দেড় বছর হলো্। তাদের দুজনকে বড় করতেই কিছুটা সময় পর্দা ছেড়ে রইলেন গীতা।

স্ত্রীকে অভিনয়ে ফেরাতে সন্তান দেখভালের দায়িত্ব নিয়েছেন হরভজন। স্বামীর এই দায়িত্বশীলতায় খুশি গীতা।

অভিনেত্রীর ভাষ্য— ‘দারুণ লাগছে। উত্তেজনা টের পাচ্ছি কাজে ফিরে। আবার একই সঙ্গে বুকের মধ্যে চাপা উদ্বেগ। ছেলেমেয়েকে ঘরে রেখে এসেছি প্রথমবার। ও ঠিক আছে তো? প্রথম সপ্তাহ এভাবেই গেছে। ধীরে ধীরে অভ্যস্ত হচ্ছি। খুব মিস করছি ওকে। কিন্তু এখন আমার স্বামী বাড়িতে থাকছেন। আর কোনো চিন্তা নেই। আমি কাজে মন দিলাম।’

অভিনেত্রী জানান, মাতৃত্ব তার জীবন বদলে দিয়েছে। ছেলেমেয়েদের নিয়ে পেশা কীভাবে সামলাবেন বুঝতে সময় লেগেছে। সবসময় বাড়ির বাইরে থেকেছেন হরভজন। খেলার সফরে ঘুরে বেরিয়েছেন বিশ্ব। আর একা সন্তান সামলাতে হিমশিম খেতেন গীতা। কিন্তু মনে মনে সিদ্ধান্ত নিচ্ছিলেন, কাজে ফিরতেই হবে।
গীতার কথায়, এতদিন তিনি ঘর সামলেছেন হরভজন বিশ্ব ঘুরে বেড়িয়েছে। এখন হরভজন ঘরে থাকুক তিনি অভিনয়ে থাকবেন।

ঠিকানা/এসআর