সেরা পুরস্কারের জন্য পাঁচটি বই মনোনীত

নিউইয়র্ক বইমেলা

ঠিকানা রিপোর্ট : নিউ ইয়র্ক বাংলা বইমেলায় ২০১৯ সালে প্রকাশিত বই থেকে প্রাথমিক বাছাইয়ে পাঁচটি বই মনোনীত হয়েছে বলে আয়োজক মুক্তধারা ফাউন্ডেশন সূত্রে জানা গেছে। বইগুলো হলো : জীবন চৌধুরীর গ্রন্থ ‘গান আর গানের মানুষ’ প্রকাশক : মূর্ধন্য, সেলিম জাহানের গ্রন্থ ‘স্বল্প কথার গল্প’ প্রকাশক : প্রথমা, মুজিব ইরমের গ্রন্থ ‘পাঠ্যপুস্তক’ প্রকাশক : চৈতন্য, ফকির ইলিয়াসের গ্রন্থ ‘নক্ষত্র বিক্রির রাতে’ প্রকাশক : য়ারোয়া বুক কর্নার, এবং স্মৃতি ভদ্রের গ্রন্থ ‘অন্তর্গত নিষাদ ও পায়রা রঙের মেঘ’, প্রকাশক : পেন্সিল পাবলিকেশন্স। বাছাইকৃত এই পাঁচটি বই থেকে ‘সেরা বই’-এর চূড়ান্ত নির্বাচনের দায়িত্বে রয়েছেন বাংলাদেশের খ্যাতনামা লেখক ও বুদ্ধিজীবীদের একটি প্যানেল। মেলার পঞ্চম দিন, ২২ সেপ্টেম্বর এই পুরস্কার ঘোষণা করা হবে। মুক্তধারা ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত ২৯-তম নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলা বসছে সেপ্টেম্বরের ১৮ থেকে ২৭ তারিখ পর্যন্ত। করোনাভাইরাসের কারণে ১০ দিনব্যাপী এই মেলার পুরোটাই হবে অনলাইন বা ভার্চুয়াল। এ বছরের মেলায় প্রথমবারের মতো ‘মুক্তধারা সেরা বই’ পুরস্কার চালু হচ্ছে। এই পুরস্কার শুধু বাংলাদেশ ও ভারতের বাইরে অবস্থানরত বাঙালি লেখকদের প্রকাশিত বইয়ের জন্য নির্ধারিত। পুরস্কারের মূল্যমান ৫০০ মার্কিন ডলার। মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের নিজস্ব তহবিল থেকে এই পুরস্কার দেয়া হবে।
এবারের মেলায় গত বছর অর্থাৎ ২০১৯ সালে উত্তর আমেরিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বাঙালি লেখকদের প্রকাশিত বই থেকে সেরা বইটি বেছে নেয়া হচ্ছে। মুক্তধারার আহ্বানে যেসব বই জমা পড়েছে, কেবল তার ভেতর থেকেই সেরা বইটি নির্বাচিত হবে। উত্তর আমেরিকা ও বহির্বিশ্বের বিভিন্ন দেশের লেখকদের কাছ থেকে পাওয়া প্রায় ৫৪টি জমা পড়ে। সেই জমাকৃত বই থেকে পাঁচটি বই মনোনয়নের জন্য চূড়ান্ত পর্যায়ে স্থান পেয়েছে। পাঁচজনের মধ্যে চারজন আমেরিকায় বসবাস করেন। লেখক মুজিব ইরম বসবাস করেন ব্রিটেনে। মেলার কর্মসূচি ও অন্যান্য তথ্যসহ ১০ দিনের অনুষ্ঠান লাইভ দেখা যাবে মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইটে। পৃথিবীর সব দেশ থেকে থাকছে হ্রাসকৃত মূল্যে বই ক্রয়ের ব্যবস্থা।