২০১৮ বিশ্বকাপের বছর

স্পোর্টস রিপোর্ট : ফুটবল ভক্তরা চাতক পাখির মতোই অপেক্ষায় থাকেন একটা বিশ্বকাপের জন্য। বিশ্বসেরা দলগুলোকে একসঙ্গে লড়াই করতে দেখার সুযোগ কেবল এখানেই পাওয়া যায়। চার বছর অন্তর বিশ্বসেরাদের মেলা বসে ফিফা কর্তৃক ঘোষিত দেশে। ব্রাজিল বিশ্বকাপের চার বছর হতে চলল। আরও একবার কড়া নাড়তে শুরু করেছে বিশ্বকাপ। আর ছয় মাস পরই রাশিয়ার ১২টি মাঠে ৩২টি দলের লড়াই শুরু হবে। ১৪ জুন মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে রাশিয়া-সৌদি আরব ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বিশ্বকাপ। একই মাঠে শেষ হবে ১৫ জুলাইয়ের ফাইনাল দিয়ে।
বিশ্বকাপের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন। এরই মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়েছে ড্র। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানি এফ গ্রুপে খেলবে মেক্সিকো, সুইডেন ও দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে। এ ছাড়াও ফেবারিট আর্জেন্টিনা ‘ডি’ গ্রুপে মুখোমুখি হবে আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ও নাইজেরিয়ার। পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল ‘ই’ গ্রুপে মুখোমুখি হবে সুইজারল্যান্ড, কোস্টারিকা এবং সার্বিয়ার। স্বাগতিক রাশিয়া এ গ্রুপে উরুগুয়ে, মিসর ও সৌদি আরবের মুখোমুখি হবে। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল ‘বি’ গ্রুপে ২০১০ সালের চ্যাম্পিয়ন স্পেন, মরক্কো এবং ইরানের মুখোমুখি হবে। লিওনেল মেসি, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, নেইমার, এমবাপ্পেসহ আরও কত ফুটবল তারকারা লড়াই করবেন বিশ্বকাপের মঞ্চে। ছয়টা মাসও এখন ভক্তদের জন্য অনেক দূরের বলে মনে হয় বিশ্বকাপের বছর
বলেই অন্যসব ইভেন্ট অনেকটা ম্লান হয়ে গেছে। তবে এ বছর বিশ্বকাপ ছাড়াও বেশ কয়েকটি ক্রীড়াযজ্ঞ রয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার পিয়ংচেংয়ে শীতকালীন অলিম্পিক হবে ফেব্রুয়ারিতে। ৯০টি দেশের ক্রীড়াবিদরা এই গেমসে অংশগ্রহণ করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্টে কমনওয়েলথ গেমস অনুষ্ঠিত হবে এপ্রিলে। এই প্রতিযোগিতায় কমনওয়েলথভুক্ত ৭০টি দল অংশগ্রহণ করবে। ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তায় এশিয়ান গেমস অনুষ্ঠিত হবে সেপ্টেম্বরে। বিশ্বকাপ আর এসব গেম ছাড়াও নিয়মিত টুর্নামেন্টগুলো তো থাকছেই। টেনিসে আছে অস্ট্রেলিয়া, ফ্রেঞ্চ, উইম্বলডন, ইউএস ওপেন এবং ট্যুর চ্যাম্পিয়নশিপ। অ্যাথলেটিকসে থাকছে ওয়ার্ল্ড ট্র্যাক চ্যাম্পিয়নশিপ। হকিতে মেয়েদের বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে জুলাইতে। ছেলেদের হকি বিশ্বকাপ হবে ডিসেম্বরে, ভারতের ভুবনেশ্বরে। সব মিলিয়ে ব্যস্ততম একটি বছর আসছে ক্রীড়ামোদীদের জন্য। অবশ্য সবচেয়ে বেশি নজর কেড়ে নেবে বিশ্বকাপ ফুটবল। এরই মধ্যে রাশিয়া ফুটবল সমর্থকদের জন্য ভিসামুক্ত প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করেছে। বিশ্বকাপ শুরুর ১০ দিন আগেই রাশিয়ায় প্রবেশের অনুমতি পাবেন ভক্তরা। থাকতে পারবেন বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার দিন পর্যন্ত। সারা বিশ্ব থেকে প্রায় এক মিলিয়ন ফুটবল সমর্থক রাশিয়া ভ্রমণ করবেন বিশ্বকাপের সময়। এদের মধ্যে থাকবেন অসংখ্য সাংবাদিকও। অনেক স্পোর্টস ইভেন্ট থাকলেও বছরটা ফুটবল বিশ্বকাপেরই।