২০২০ আদমশুমারির জন্য ‘নিবাফ’ আপনার বিশ্বস্ত প্রতিনিধি

ঠিকানা অনলাইন : যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি দশ বছরে একবার জাতীয় আদমশুমারি সংগঠিত হয়। মূলত, এটির মাধ্যমে দেশটিতে প্রকৃত জনসংখ্যার তথ্য জানা প্রকাশ করা হয়। বিশেষ করে আমেরিকা, যুক্তরাষ্ট্র, আপনার রাজ্য এবং আপনি যে শহরে বসবাস করেন, তার মোট জনসংখ্যার গণনা করে। এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানের একটি অংশ এবং আদমশুমারির কাজে সহযোগিতা করা আপনার নাগরিক দায়িত্ব।

আমাদের কমিউনিটির বিশ্বস্ত প্রতিনিধি হিসেবে, নিবাফ, নিউইংল্যান্ড বাংলাদেশী আমেরিকান ফাউন্ডেশন ইনক, আপনাকে আশ্বাস দেয় যে, ২০২০ সালের জাতীয় আদমশুমারি নিরাপদ, সহজ এবং গুরুত্বপূর্ণ।

নিবাফ, নিউইংল্যান্ড বাংলাদেশী আমেরিকান ফাউন্ডেশনের সংশ্লিষ্টরা

আদমশুমারি নিরাপদ কারণ- আপনার ব্যক্তিগত তথ্য বাহাত্তর বছর পর্যন্ত ফেডারেল আইনের অধীনে সুরক্ষিত। আপনার সম্পর্কীয় যেকোনও তথ্য কেবলমাত্র পরিসংখ্যান গত উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হবে। আদমশুমারি সহজ কারণ- যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথমবার এটি অনলাইনে প্রকাশিত হয়েছে। আপনি আপনার কম্পিউটার কিংবা মোবাইল ফোনে শুমারি নিতে পারেন। স্বেচ্ছায় অনলাইন এ শুমারি সম্পূর্ণ করলে, আদমশুমারি গ্রহণকারীকে আপনার দরজায় আসতে হবে না। জনসংখ্যার গণনা জনগণের উন্নয়নের জন্য ফেডারেল তহবিলের কোটি কোটি ডলার স্কুল, স্বাস্থ্যসেবা, পরিবহনব্যবস্থা, স্থানীয় উন্নয়নশীল প্রোগ্রামের কোনো খাতে কিভাবে খরচ হবে, সেটি নির্ধারণ করে আদমশুমারিতে উল্লেখিত জনসংখ্যার গণনা তথ্যের ওপর ভিত্তি করে। যে কারণে আদমশুমারি পূরণ করা আপনার কমিউনিটির ভবিষ্যত গঠনের একটি সুবর্ণ সুযোগ।

আপনার পরিচিত সবাইকে গণনা করুন। পরিবারের একজন সদস্য সবার জন্য আদমশুমারি পূরণ করতে পারেন। প্রত্যেকের পুরো নাম, জন্মতারিখ, জাতিগত পরিচয় এবং একে অপরের সাথে সম্পর্ক উল্লেখ করতে হবে। এছাড়া আপনি ভাড়া বাড়িদে থাকেন না- কিনা? এবং বাড়ির মালিকানা বন্ধক থেকে মুক্ত কিনা। এসব তথ্যও উল্লেখ করতে হবে।

প্রতারণা থেকে সাবধান থাকুন। আদমশুমারি করতে কখনই টাকা-পয়সা, আপনার সামাজিক সুরক্ষা নম্বর, বা ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য চাইবে না। একজন আদমশুমারি গ্রহণকারীর কাছে উপযুক্ত সরকারী ব্যাজ এবং সনাক্তিপত্র থাকবে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আদমশুমারি ব্যুরো কিছু নির্দিষ্ট-জনগোষ্ঠীর সংখ্যাসম্পূর্ণ এবং নির্ভুল গণনার জন্য বিশেষ প্রচার চালাচ্ছে। তারা হলো- গৃহহীন নর-নারী, ৫ বছরেরও কম বয়সী শিশু, ইমিগ্র্যান্ট জনগোষ্ঠী, আইন লঙ্ঘন করে বিনা কাগজে যারা আমেরিকায় আছেন, ভাল ইংরেজি জানেন না, বিভিন্ন বর্ণের মানুষ এবং যারা নিম্নবিত্ত। কারণ এই সব জনগোষ্ঠীর গণনার আওতার বাইরে থেকে যাওয়া খুবই সহজ, যাতে করে গণনা ক্ষুন্ন হয়। অন্যদিকে, এই জনগোষ্ঠীগুলিই সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ এবং রাষ্ট্রীয় সহায়তার দাবিদার।

বাংলাদেশীদের জন্য আদশুমারির বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে যারা যুক্তরাষ্ট্রে সাম্প্রতিক ইমিগ্র্যান্ট। এছাড়া ১৯৮০’র দশকে আমেরিকাতে গেছেন। আদমশুমারির প্রশ্ন সূচিতে ভিয়েতনামী, ফিলিপিনোস, চীনা, কোরিয়ান, এমনকি ইন্ডিয়ান আমেরিকানসহ অন্যান্য কয়েকটি জাতিকে সংখ্যাগরিষ্ট হিসাবে তুলে ধরা হয়েছে। অথচ যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাংলাদেশীদের সঠিকসংখ্যা এখনও প্রশ্নবিদ্ধ। এ জন্যই আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্য এবং কাউন্টিতে বসবাসরত বাংলাদেশীদের একটি সম্পূর্ণ এবং নির্ভুল গণনা তুলে ধরতে কাজ করছে নিবাফ। নিবাফের সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, ‘এটি সরকারি পরিসংখ্যান সংখ্যায় আমাদের কমিউনিটির শক্তি বাড়িয়ে তুলতে বাধ্য। বিভিন্ন সরকারী সংস্থা এবং রাজ্যসংস্থা আমাদের চাহিদার সমর্থন করার জন্য উদ্বুদ্ধ করবে।’

নিবাফ, ২০২০ জাতীয় আদমশুমারিতে অংশগ্রহণ করে বাংলাদেশী কমিউনিটিকে নিজেদের নাগরিক দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়েছে। জাতি এবং জাতিগত প্রশ্নের জবাবে ‘অন্যান্য এশিয়ান’ এর বক্সটি চিহ্নিত করুন এবং লেখার জায়গায় ‘বাংলাদেশী’ পূরণ করে আমাদের আসল পরিচয় আমেরিকার সামনে তুলে ধরুন।

শীঘ্রই সেপ্টেম্বরের ত্রিশ তারিখ নাগাদ আদমশুমারি শেষ হতে চলেছে। স্বেচ্ছায় অনলাইন এ শুমারি সম্পূর্ণ করুন। নিজেকে শুমারীর অন্তর্ভুক্ত করুন। বিস্তারিত আরও তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.2020Census.gov ওয়েবসাইটে।