২০২০ সেন্সাসে পুনর্বহাল হবে সিটিজেনশিপের প্রশ্ন!

ঠিকানা ডেস্ক : প্রতি ১০ বছরের ব্যবধানে আমেরিকাতে সেন্সাস বা আদম শুমারি ( লোকগণনা) অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। সেই হিসেবে আগামী ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত হবে আদম শুমারি। এদিকে ২০২০ সালে অনুষ্ঠিতব্য আদম শুমারিকে সামনে রেখে ২৬ মার্চ কমার্স ডিপার্টমেন্ট ঘোষণা দিয়েছে যে এবারের আদশ শুমারিতে সিটিজেনশিপেরা ( নাগরিকত্বের) প্রশ্ন অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

ভোটিং রাইটস অ্যাক্টস উন্নততরভাবে কার্যকরের জন্য নাগরিকত্বের বিষয়টি অপরিহার্য বিধায় গোড়ার দিকগুলোতে প্রশাসন এবং বর্তমানে জাস্টিস ডিপার্টমেন্ট ২০২০ সেন্সাসে নাগরিকত্ব বা সিটিজেনশিপের প্রশ্ন অন্তর্ভুক্তির অনুরোধ করেছে। এক ইমেইল বার্তায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পুনর্নির্বাচন ক্যাম্পেইন ধারণাটি পছন্দ করে বলে সমর্থকদের জানিয়েছে।

অন্যান্য ব্যবহার ছাড়াও ফেডারেল তহবিল বরাদ্দ দেয়া এবং কংগ্রেশনাল ডিস্ট্রিক্টের সীমানা নির্ধারণের কাজে প্রধানত আদম শুমারির পরিসংখ্যান ব্যবহার করা হয়। আর সেন্সাস বা আদম শুমারির মূল লক্ষ হচ্ছে শুধুমাত্র সিটিজেন বা নাগরিক নয়, বরং বৈধ-অবৈধ নির্বিশেষে আবাল-বৃদ্ধ-বনিতাকে হিসাবের তালিকায় এনে আমেরিকার মোট জনসংখ্যা নির্ধারণ করা।

প্রশ্ন উঠেছে যে আদম শুমারির প্রশ্নপত্রে নাগরিকত্বের বিষয়টি সংযোজন করা হলে কাগজপত্রবিহীন লাখ লাখ অভিবাসী আদম শুমারিতে অংশ নিবে না। ফলে তারা আগামী ১ দশক বা তারও বেশি সময় গণবার বাইরেই থেকে যাবে এবং আমেরিকার মোট জনসংখ্যার নিখুঁত পরিসংখ্যান পাওয়া যাবে না।

ক্রিসেন ক্লার্কের প্রতিক্রিয়া: লইয়ারর্স কমিটি ফর সিভিল রাইটস আন্ডার ল এর প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টেন ক্লার্ক বলেন, এই অবিম্যকারী ও অপরীক্ষিত সিদ্ধান্তের ফলে সংবিধানের চাহিদা অনুযায়ী দেশের মোট সংখ্যাকে সঠিক গণনার হিসাবে আনা যাবে না।

কমার্স ডিপার্টমেন্টের বক্তব্য: এদিকে এক বক্তব্যে কমার্স ডিপার্টমেন্টের পক্ষ থেকে বলা হয় যে বার্ষিক আমেরিকান কমিউনিটি সার্ভেতে ( এসিএস) যেভাবে সিটিজেনশিপের প্রশ্ন করা হয় সেন্সাসের সিটিজেনশিপের প্রশ্নটিও অনুরূপ হবে। পূর্ববর্তী দশকীয় সেন্সাসগুলোতেও সিটিজেনশিপের প্রশ্নটি অন্তর্ভুক্ত ছিল।

১৮২০ থেকে ১৯৫০ সালের মধ্যে, প্রতি ১০ বছর পর পর অনুষ্ঠিত সেন্সাসে কোন না কোনভাবে সিটিজেনশিপ সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হত। আজ, কারেন্ট পপুলেশন সার্ভে ( বর্তমান জনসংখ্যা জরিপ) এবং এসিএস-এর মত জনসংখ্যার নমুনা সংগ্রহ জরিপে সিটিজেনশিপ বিষয়ক প্রশ্ন জিজ্ঞাসার ধারা অব্যাহত রয়েছে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয় কমার্স সেক্রেটারী ইউলবার রস অতীতের বিরূপ প্রভাব-প্রতিক্রিয়া মুক্ত হয়ে লেজিটিমেইট গভর্নমেন্ট পারপাস ( সরকারের আইনানুগ উদ্দেশ্য) পূরণের লক্ষে সঠিক ও অভ্রান্ত তথ্য সংগ্রহে সঙ্কল্পবদ্ধ।

ইউ এস ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে মামলা: ২০২০ সালের আদম শুমারির প্রশ্নপত্রে নাগরিকত্ব সম্পর্কে প্রশ্ন সংযোজন সংশ্লিষ্ট ট্রাম্প প্রশাসনের উদ্যোগ প্রতিহত করার নিমিত্ত ক্যালিফোর্নিয়ার ডেমক্র্যাটিক দলীয় এটর্নী জেনারেল জেভিয়ার বেকেরা ইউএস ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে মামলা রুজু করেছেন। মামলার আর্জিতে বেকেরা বলেন, প্রত্যেক ক্যালিফোর্নিয়াবাসীর জন্য সঠিক ও নির্ভুল গণনা হবে সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আগামী দশকে আমাদের কমিউনিটির প্রবৃদ্ধি এবং বিকাশের লক্ষে সুষ্ঠু ও বাস্তবসম্মত পরিকল্পনা গ্রহণের মেরুদণ্ড হচ্ছে আদশ শুমারির পরিসংখ্যান। তিনি বলেন, ট্রাম্প প্রশাসনের অভিপ্রায় চরিতার্থ হলে পরবর্তী দশকের জন্য আমাদের অপূরণীয় ক্ষতি সাধিত হবে।

এটর্নী জেনারেল ছনীডারম্যান: নিউইয়র্ক এটর্নী জেনারেল এরিক ছনীডারম্যান বলেন, সিটিজেনশিপ প্রশ্ন অবরুদ্ধে তিনি মাল্টি-স্টেট ( বহু স্টেট) প্রচেষ্টায় নেতৃত্ব দিবেন। এক বক্তব্যে ছনীডারম্যান আইনানুগ চ্যালেঞ্জে চতুর্দশ সংশোধনী এবং দ্য এনুমারেশন ক্লজের উদ্ধৃতি দেন। তিনি বলেন, নিউইয়র্কের মত ক্রমবর্ধিষ্ণু অভিবাসী অধ্যুষিত স্টেটগুলোকে সরাসরি টার্গেট করে উদ্যোগটি নেয়া হয়েছে। এর ফলে নিউইয়র্ক ও অন্যান্য অভিবাসী অধ্যুষিত স্টেটগুলোর ফেডারেল তহবিলের বিলিয়ন ডলার বরাদ্দ হ্রাস পাবে এবং কংগ্রেসে সঠিক নেতৃত্ব এবং ইলেকটরাল কলেজ বাধাগ্রস্ত হবে।