২০ ভূতের শয্যাসঙ্গিনীর অভিজ্ঞতা

বিশ্বচরাচর ডেস্ক : অ্যামেথিস্ট রেলম। ২৭ বছর বয়সী এই নারী পেশাগতভাবেই ভৌতিক বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত। সেই সুবাদে নাকি অশরীরীর সঙ্গে তার শরীরী সম্পর্ক গড়ে ওঠেছে। অ্যামেথিস্টের ভাষায়, অবর্ণনীয় আনন্দ সেই মিলনে। তার দাবি, তিনি ২০টি প্রেতাত্মার সঙ্গে মিলিত হয়েছেন।

অশরীরীদের সঙ্গে শরীরী মিলন সম্ভব কি না, সে নিয়ে প্রশ্ন থাকতেই পারে। কিন্তু তার নিজের বক্তব্যে অনড় যুক্তরাজ্যের অ্যামেথিস্ট রেলম। ‘নিউজ মেইল’-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, ২৭ বছর বয়সি অ্যামেথিস্ট পেশায় স্পিরিচুয়াল গাইডেন্স কাউন্সেলর। পেশাগত কারণেই ভৌতিক জগতের সঙ্গে তার নাকি ঘনিষ্ঠ সম্বন্ধ। ১২ বছর আগে তার তৎকালীন প্রেমিক এক নতুন বাড়িতে গিয়ে ওঠেন। সেখানে তিনি প্রথম অশরীরীর অস্তিত্ব টের পান। প্রথমে তা ছিল একান্ত ভাবেই আবছায়া অনুভূতি। কোনও অদৃশ্য শক্তির উপস্থিতি তিনি টের পেতেন।

কিন্তু ক্রমে তা শরীরী হয়ে ওঠে। তিনি তার উরুর উপরে চাপ অনুভব করতেন, সেই সঙ্গে ঘাড়ের কাছে কারোর নিঃশ্বাস পড়ছে টের পেতেন। ক্রমে সেই অশরীরীর সঙ্গে তার শরীরী সম্পর্ক গড়ে ওঠে। অ্যামেথিস্টের ভাষায়, অবর্ণনীয় আনন্দ সেই মিলনে। তিন বছর সেই সম্পর্ক টিকেছিল। কিন্তু তার প্রেমিক এক দিন তাকে ভূতের সঙ্গে মিলিত অবস্থায় দেখে ফেলেন। তার পরে সেই ভূত আর ফিরে আসেনি।