৩০০ নির্বাচনী আসনে ৩০০ সিনেপ্লেক্সের দাবি হাবিবের

ঠিকানা ডেস্ক : দেশের ৩০০ নির্বাচনী আসনে ৩০০টি সিনেপ্লেক্স চান চলচ্চিত্র পরিচালক ও বাংলাদেশ ফিল্ম এন্ড মিডিয়া সোসাইটি সভাপতি হাবিবুল ইসলাম হাবিব। তিনি এ দাবির সপক্ষে ফেসবুক ও বিভিন্ন মিডিয়ায় তার যুক্তি তুলে ধরে প্রচারণা চালাচ্ছেন। তিনি সরকারের কাছে ৩০০ নির্বাচনী আসনে ৩০০ সিনেপ্লেক্স বাস্তবায়নের জোর যুক্তি তুলে দাবি জানিয়েছেন। গত ২০ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী বরাবর এ বিষয়টি তুলে ধরে একটি আবেদনও করেছেন। যাতে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষিত হয়।
হাবিবুল ইসলাম হাবিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চলচ্চিত্র বান্ধন প্রধানমন্ত্রী। তিনি চলচ্চিত্র উন্নয়নে নানা উদ্যোগ নিচ্ছেন। এবং বাস্তবায়ন করছেন। বর্তমানে সিনেমা হল কমে যাচ্ছে। প্রতিনিয়ত সিনেমা হল বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সিনেমা হলের পরিবেশ দর্শকদের টানতে পারছে না। তবে দেশের সিনেপ্লেক্সগুলোতে দর্শক যাচ্ছে। দেশে-বিদেশি ছবি দেখছেন। বর্তমানে সারা দুনিয়ায় সিনেপ্লেক্স কালচার শুরু হয়েছে। ডিজিটাল সব ব্যবস্থা হওয়ায় দর্শকরয় সিনেমা দেখে মজা পাচ্ছেন। সিনেমা ব্যবসা ভালো করছে।
বাংলাদেশেও সিনেপ্লেক্স গড়ে উঠলে সিনেমা ব্যবসা চাঙ্গা হবে। সিনেমার সুদিন ফিরে আসবে। হাবিবুল ইসলাম হাবিব তার ভাষায় বলেন, এই দাবীটি বাস্তবায়নের জন্যে অনেকদিন কাজ করছি।। সবার কাছে সহযোগিতা চাইছি।। অনেক প্রযোজক পরিচালক শিল্পী কলা-কুশলী এবং প্রিয় বন্ধুরা শুভেচ্ছা জানিয়ে এটা পোস্ট করে আমাকে অনুপ্রেরণা দিচ্ছেন। পাশে থাকছেন। তিনি বলেন, যুগান্তকারী এই দাবীটি বাস্তবায়িত হলে দেশের সিনেমা শিল্পে বিপ্লব ঘটে যাবে এবং কোটি কোটি টাকার বাণিজ্য হবে দেশের সিনেমার মাধ্যমে।। তখন ইনভেষ্ট বাড়বে সিনেমায়। দেশি-বিদেশি জাতীয় এবং বহুজাতিক করপোরেট কোম্পানিগুলো এগিয়ে আসবে।
অন্যদিকে দেশের বেকার সমস্যা অনেকটাই মিটে যাবে। শিক্ষিত ছেলে-মেয়েরা দেশের সিনেমায় যুক্ত হবে। তাদের মেধা প্রকাশে সহায়ক হবে। গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার রাজস্ব পাবেন লক্ষ কোটি টাকা। দেশের প্রতিটি জেলা উপজেলা থেকে নতুন নতুন অনেক প্রযোজক, পরিচালক, কাহিনীকার, অভিনেতা -অভিনেত্রীসহ নানা রকম প্রতিভাবানেরা বেরিয়ে আসবেন। বাংলাদেশের সিনেমা সারাবিশ্বে রপ্তানি হবে। আমাদের সিনেমা সারাদুনিয়াতে সাড়া জাগাবে। তিনি বিশেষ করে চলচ্চিত্র বান্ধব বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর এ দাবি বাস্তবায়নে সহযোগিতা কামনা করেছেন। তার প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিতে বিষয়টি এলে সিনেমা মানুষের জন্য তিনি এগিয়ে আসবেনই।