৯ বছর পর প্রকাশ হলো মোল্লা ওমরের দাফনের স্থান

ঠিকানা অনলাইন : তালেবানের প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা ওমরের দাফনের স্থান (কবর) দীর্ঘ ৯ বছর ধরে গোপন রাখা হয়েছিল। ৬ নভেম্বর (রবিবার) তা প্রকাশ করা হয়েছে। খবর খবর ডিএনএ ও এএফপির।

যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধের অংশ হিসেবে ২০০১ সালে আফগানিস্তানে মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনীর হামলায় তালেবান ক্ষমতাচ্যুত হয়। তালেবান ক্ষমতা থেকে উৎখাত হওয়ার পর মোল্লা ওমরের স্বাস্থ্য ও তাঁর অবস্থান সম্পর্কে নানা গুজব ছড়িয়ে পড়ে। ২০১৫ সালের এপ্রিলে তালেবান প্রথম স্বীকার করে, মোল্লা ওমর দুই বছর আগে মারা গেছেন।

মোল্লা ওমরের মৃত্যুর কথা তালেবান স্বীকার করলেও তাঁর দাফনের স্থান তারা গোপন রাখে। তবে, রোববার তালেবানের মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ তালেবানের প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা ওমরের দাফনের স্থান প্রকাশ করেন।

জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ বলেন, মোল্লা ওমরের কবর আফগানিস্তানের জাবুল প্রদেশের সুরি জেলার ওমরজোর কাছে অবস্থিত। তালেবানের জ্যেষ্ঠ নেতারা গতকাল রোববার মোল্লা ওমরের কবরস্থানে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন।

২০ বছরের দখলদারি শেষে গত বছরের আগস্টে আফগানিস্তান ত্যাগ করে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন বাহিনী। বিদেশি সেনাদের আফগানিস্তান ত্যাগের প্রাক্কালে দেশটির ক্ষমতা আবার তালেবানের হাতে যায়। পরে তারা সরকার গঠন করে।

জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ বলেন, যেহেতু তালেবানের অনেক শত্রু ছিল, দেশটি দখল করা হয়েছিল, তাই মোল্লা ওমরের সমাধির ক্ষতি এড়াতে এ-সংক্রান্ত তথ্য গোপন রাখা হয়েছিল।

ঠিকানা/এসআর